মঙ্গলবার , ৭ এপ্রিল ২0২0, Current Time : 4:13 am
  • হোম » আন্তর্জাতিক » ট্রাম্পের বিরোধিতা সত্ত্বেও সিনেটে প্রস্তাব পাশ ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নয়




ট্রাম্পের বিরোধিতা সত্ত্বেও সিনেটে প্রস্তাব পাশ ইরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নয়

সাপ্তাহিক আজকাল : 15/02/2020

আজকাল রিপোর্ট
ইরানে যুদ্ধের বিরুদ্ধে প্রস্তাব মার্কিন সিনেটে পাশ হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রস্তাবটি পাশ হওয়ার কারণে কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়া ইরানে যুদ্ধে যেতে পারবেন না প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও তিনি প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছিলেন কিন্তু প্রস্তাবটি পাশে রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাট উভয় দলের সমর্থন দেওয়া একটি বিরল ঘটনা। ৫৫-৪৫ ভোটে পাশ হওয়া প্রস্তাবের পক্ষে ট্রাম্পের রিপাবলিকান দলের আটজন ভোট দিয়েছেন।
প্রস্তাবের পক্ষে রিপাবলিকান দলের টেনেসির টামার আলেকজান্ডার, ইন্ডিয়ানার টড ইয়ং, উটাহ্্র মাইক লী, আলাস্কার লিসা মুরকস্কি, মেইনের সুসান কলিন্স, কেনটাকির র‌্যান্ড পল, লুসিয়ানার বিল ক্যাসিডি এবং কানসাসের জেরি মরান ভোট দিয়েছেন। তারা ট্রাম্পের বিপক্ষে গিয়ে বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছেন।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বুধবার টুইট করে বিলটি যাতে পাশ না করা হয় সে ব্যাপারে সতর্ক করেছিলেন। টুইটে প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের ইরান ওয়্যার রেজুলেশনের পক্ষে ভোট দেওয়া উচিত হবে না। কারণ এটা আমাদের দেশের নিরাপত্তার জন্যে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। আমার হাত বেঁধে দেওয়া হলে ইরান যুদ্ধের মাঠ দখলে নিয়ে নেবে’। কিন্তু এসব সতর্কবার্তা খোদ রিপাবলিকানরাই কানে তুলেননি।
হোয়াইট হাউস প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভেটো দেয়ার হুমকি দিয়েছে।
দ্বিদলীয় প্রস্তাবটির প্রণেতা ভার্জিনিয়ার ডেমোক্র্যাটিক সিনেটর টিম কেইন। তবে লী, পল এবং কলিন্সসহ বেশ কয়েকজন রিপাবলিকান সিনেটর প্রস্তাবকে কো-স্পন্সর করেছেন।
চূড়ান্ত ভোটের আগে বুধবার শেষ বেলায় রিপাবলিকান সিনেটর টম কটন সংশোধনী আনলে প্রস্তাবটি লাইনচ্যূত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছিল। ডেমোক্র্যাটরা এ সংশোধনী প্রস্তাবকে বিষ বড়ি হিসাবে আখ্যায়িত করেন। সংশোধনীতে দুই দলের পর্যাপ্ত সমর্থন পেলে ওয়ার পাওয়ার রেজুলেশন পাশ করা কঠিন হয়ে পড়ার আশঙ্কা ছিল।
কিন্তু সিনেট বিতর্কিত সংশোধনীকে পরাজিত করে প্রস্তাবটি পাশের পথ উন্মুক্ত করে। সুস্পষ্টভাবে যুদ্ধ ঘোষণার অনুমোদন দেওয়া না হলে কিংবা যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী ব্যবহারের সুনির্দিষ্ট অনুমোদন না হলে প্রস্তাবটি ইসলামিক রিপাবলিক অব ইরানের বিরুদ্ধে বৈরীতার জন্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীকে ব্যবহারের প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা রহিত করেছে। একইভাবে সুস্পষ্ট অনুমোদন ছাড়া ইরানের সরকারের কিংবা সেনাবাহিনীর কোনও অংশ বিশেষের বিরুদ্ধেও যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীকে ব্যবহার করতে পারবেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট।
তবে এতে একটি বিধান রাখা হয়েছে যে, আসন্ন কোনও হামলা থেকে আত্মরক্ষায় এই প্রস্তাব মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বিরত রাখবে না। প্রস্তাবটিতে কিছু রিপাবলিকান সমর্থন দিলেও সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা মিচ ম্যাককোনাল প্রস্তাবটির জোরালো বিরোধিতা করেছেন। এর ফলে প্রস্তাবটিকে ভেটো দেয়ার ক্ষমতা বন্ধ করা যাবে না। কারণ প্রস্তাবটি পাশ হলেও ভেটো দেয়ার ক্ষমতা রহিত করার জন্যে পর্যাপ্ত সংখ্যাগরিষ্ঠ সমর্থন প্রস্তাবটির পক্ষে নেই।
বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে লী আহ্বান জানান যে, প্রেসিডেন্টের পররাষ্ট্র নীতির এজেন্ডা ও উদ্দেশ্যের জন্যে মতভেদের সৃষ্টি করবে না। লী বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট আমাদের পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে যা করছেন তাকে আমি সমর্থন করি। ট্রাম্পের পররাষ্ট্র নীতিকে আমি সমর্থন করি। এই নীতির কারণে খুব সহজেই দ্রুত অসাংবিধানিক উপায়ে যুদ্ধে জড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ নাই। ফলে আমি যা করছি তা ট্রাম্পের পররাষ্ট্র নীতির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ’।
কেইন বুধবার যুক্তি দেখান যে, প্রস্তাবটি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দিকেই শুধু নির্দেশনা দেয় না; বরং এটি যে কোনও প্রেসিডেন্টের জন্যে প্রযোজ্য। এটা মূলত সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা কংগ্রেসের হাতে নেয়া। ফলে যে কোনও সময়ে সিদ্ধান্ত নিতে কংগ্রেসের হাতে ক্ষমতা থাকছে।
সিনেটে সংখ্যালঘূ নেতা চাক শুমার মঙ্গলবার যুক্তি দেন যে, এই প্রস্তাব পাশের মাধ্যমে হোয়াইট হাউসকে প্রেসিডেন্টের ভেটো প্রয়োগের ক্ষমতার বিরুদ্ধেও সতর্কবার্তা দেবে। কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়া সিনেট ও কংগ্রেসের সংখ্যাগরিষ্ঠরা যুদ্ধ চায় না বলে এটা বার্তা দেবে।
সিনেটে বিভক্ত অভিশংসন চলাকালে ইরান ওয়্যার পাওয়ার প্রস্তাবটি সামনে আসে। প্রেসিডেন্টকে অবশ্য অভিশংসন থেকে মুক্তি দেয়া হয়েছিল। ইরানি নেতা কাসেম সোলেমানিকে হত্যার জন্যে প্রেসিডেন্টের নির্দেশ জারির পর কেইন প্রস্তাবটি প্রণয়ন করেন।



Chief Editor & Publisher: Zakaria Masud Jiko
Editor: Manzur Ahmed
37-07 74th Street, Suite: 8
Jackson Heights, NY 11372
Tel: 718-565-2100, Fax: 718-865-9130
E-mail: [email protected]
� Copyright 2009 The Weekly Ajkal. All rights reserved.