মঙ্গলবার , ২0 অগাস্ট ২0১৯, Current Time : 7:20 am




নিউইয়র্ক স্টেট ও সিটি কমিটি পাচ্ছে ঢাকা মহানগর বিএনপির মর্যাদা

সাপ্তাহিক আজকাল : 10/08/2019

বিশেষ প্রতিনিধি
নিউইয়র্ক স্টেট ও সিটিতে বিএনপির যে কমিটি গঠিত হবে সেটি ঢাকা মহানগরের পদমর্যাদা পাবে। ঢাকা এবং লন্ডনের বিএনপির হাইকমান্ড কেন্দ্রীয়ভাবে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটি না করার ব্যাপারে সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়ার পর এ ধরনের চিন্তা করছে। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, স্টেট ও সিটি যদি ঢাকা মহানগর কমিটি মর্যাদায় পায় তাহলে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে চলমান গ্রুপিং হ্রাস পাবে। কেন্দ্রীয়ভাবে যুক্তরাষ্ট্রের বিএনপির কমিটি হলে যেখানে একজন সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক হওয়ার সুযোগ পেতেন এবং অন্যরা বিরাগভাজন হতেন। কিন্তু স্টেট ও সিটি বিএনপির সমান মর্যাদা হলে অনেকেই উভয় কমিটিতে জায়গা করে নিতে পারবেন এবং আলাদাভাবে কর্মসূচি দিতে পারবেন। বিএনপির লন্ডনের হাইকমান্ডের একটি দায়িত্বশীলসূত্র সাপ্তাহিক আজকালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
সূত্রটি জানায়, বহুধাবিভক্ত যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নিয়ে লন্ডন এবং ঢাকার দায়িত্বশীলরা নাখোশ। কর্মসূচির মাঠে না থাকলেও পদ-পদবীর দৌঁড়ে এগিয়ে থাকতে চান এখানকার অনেক নেতা। এ কারণে বহুবার উদ্যোগ নেয়ার পরও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির কমিটি দেয়া সম্ভব হয়নি। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের মত গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় বিএনপিকে এভাবে চুপ রাখার পক্ষে নয় লন্ডনের হাইকমান্ড।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে লন্ডনের হাইকমান্ডের এক দায়িত্বশীল নেতা সাপ্তাহিক আজকালকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিএনপি নেতাদের উপর কিছুটা বিরক্ত হলেও এখন কমিটি নিয়ে ভাবনা শুরু হয়েছে। গত দুই বছর বহু সিনিয়র নেতা যুক্তরাষ্ট্র সফর করে লন্ডনের হাইকমান্ডের কাছে যে রিপোর্ট দিয়েছে তা সন্তোষজনক নয়। তাদের প্রত্যেকের রিপোর্টে নেতাদের মধ্যকার বিদ্যমান গ্রুপিং চিত্রায়িত হয়েছে।
তিনি বলেন, এ কারণে আমাদের ভাবনায় নতুনত্ব এসেছে। নিয়ম অনুযায়ি যুক্তরাষ্ট্রে কেন্দ্রীয়ভাবে একটি কমিটি ঘোষণার পর বিভিন্ন স্টেট ও সিটি কমিটি করার কথা। কিন্তু সে লক্ষে উদ্যোগ নিয়েও নানা অপ্রিতীকর ঘটনা ঘটেছে। এ ধরনের বাস্তবতায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে লন্ডন বা ঢাকার তত্ত্বাবধানে স্টেট ও সিটি বিএনপির কমিটি দেয়ার।
ওই নেতা বলেন, এখানেই শেষ নয়। এ বছরের মধ্যে সব স্টেট ও সিটি কমিটি গঠন শেষ হলে কেন্দ্রীয়ভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বিএনপির কমিটি দেয়ার বিষয়টি আলোচনায় আসতে পারে। কিন্তু এতেও বিদ্যমান গ্রুপিং শেষ হবে না বলে মনে করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, আমরা জানি যুক্তরাষ্ট্রে অন্তত ৪/৫জন নেতাকে পদ-পদবী দিয়ে সমন্বয় করা গেলে গ্রুপিং নির্মূল হবে চিরতরে। যেমন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক হতে চান এমন চারজনকে স্টেট ও সিটি বিএনপির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক করা হলে বা দুই/একজনকে কেন্দ্রে সমন্বয় করা হলে গ্রুপিং থাকার কথা নয়। তবে যেহেতু কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপির কমিটি হবে না সেহেতু নিউইয়র্ক স্টেট ও সিটি কমিটিকে ঢাকা মহানগরের মর্যাদা দিলে এতে নেতাকর্মীরা রাজী হবেন বলে প্রতিয়মান হয়। আর সে লক্ষ্যেই এগুচ্ছে কার্যক্রম।



Chief Editor & Publisher: Zakaria Masud Jiko
Editor: Manzur Ahmed
37-07 74th Street, Suite: 8
Jackson Heights, NY 11372
Tel: 718-565-2100, Fax: 718-865-9130
E-mail: [email protected]
� Copyright 2009 The Weekly Ajkal. All rights reserved.