শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২0১৯, Current Time : 3:21 am




অবৈধদের লাইসেন্স দেয়ার সিদ্ধান্তে ড্রামের সন্তোষ প্রকাশ

সাপ্তাহিক আজকাল : 22/06/2019


আজকাল রিপোর্ট
নিউইয়র্কের ড্রামসহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও অভিবাসীদের টানা ১৫ বছরের আন্দোলনের সফলতায় আনডকুমেন্টটেডরা ড্রাইভিং লাইসেন্স পাচ্ছেন। সোমবার স্টেট সিনেটে পাস হয়েছে বৈধ/অবৈধ নির্বিশেষে সব প্রাপ্তবয়স্কের জন্য ড্রাইভিং লাইসেন্সের বিল। এ বিল পাশের আগে ১২ জুন অনুরূপ আরেকটি বিল পাশ হয় স্টেট অ্যাসেম্বলিতে। এ বিলে সম্মতি দিয়েছেন গভর্নর এ্যান্ড্রু কুমো, তাই এটি এখন আইনে পরিণত হয়েছে।

গত বুধবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ড্রাম কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ‘ড্রাম’ এর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশিসহ সাড়ে ৭ লাখ অবৈধ অভিবাসী ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার পথ সুগম হয়েছে। এটি নিউইয়র্কের জন্য বড় ধরনের একটি বিজয় বলে উল্লেখ করেন ড্রামের সংগঠক কাজী ফৌজিয়া। তিনি জানান, গত ১৫ বছরে কমপক্ষে ৫২বার ডাইভারসিটি প্লাজায় র‌্যালি করেছি।
ফৌজিয়া বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিবাসন বিরোধী কট্টর অবস্থানে লাখ লাখ কাগজপত্রহীন অভিবাসী সদা-সন্ত্রস্ত জীবনযাপন করছেন। এখন তারা ড্রাইভিং লাইসেন্স পেলে নির্ভয়ে কর্মস্থলে যাতায়াত এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলাসহ সবকিছু করতে পারবেন। প্রচলিত বিধি অনুযায়ী ট্যাক্স পরিশোধ এবং সড়ক-মহাসড়কে টোল দেবেন।
‘গ্রিন লাইট বিল’ নামে এ বিধি করার দাবিতে আন্দোলনকারি অর্ধশতাধিক সংগঠনের পক্ষ থেকে নিউইয়র্ক রাজ্যের জনপ্রতিনিধিদের অভিনন্দন জানানো হয়েছে বলে জানান ড্রামের আরেক সংগঠক নাঈম।
তিনি বলেন, বৈধ কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের জন্য ইতোপূর্বে ওয়াশিংটন ডিসি এবং পর্টোরিকোসহ ক্যালিফোর্নিয়া, কলরাডো, ইলিনয়, ম্যারিল্যান্ড, মিনেসোটা, নিউ জার্সি, নিউ মেক্সিকো, নর্থ ক্যারলিনা, পেনসিলভেনিয়া, ভার্জিনিয়া রাজ্যে বিধি তৈরি হয়েছে। এ বিলে স্বাক্ষরের সময় অঙ্গরাজ্য গভর্নর এ্যান্ড্রু কুমো জনপ্রতিনিধি ও রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে নিশ্চয়তা চেয়েছেন যে, অবৈধ অভিবাসীরা যখন ডিএমভি (ডিপার্টমেন্ট অব মটর ভেহিক্যাল) অফিসে লাইসেন্সের জন্য যাবেন তখন ফেডারেল অ্যাজেন্টরা (ইমিগ্রেশন) তাদের ধরতে পারবে না।
এদিকে এ বিলে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ সোসাইটির সহসভাপতি ও পপুলার ড্রাইভিং স্কুলের কর্ণধার আবদু রহিম হাওলাদার। তিনি সাপ্তাহিক আজকালকে বলেন, ড্রামের সঙ্গে ১৫ বছরের আন্দোলনে আমারও ছিলাম। আজ আমরা বলতে চাই, আমরা অভিবাসী, আমরা চাইলে দাবী আদায় করতে পারি। তিনি এ বিল পাস হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জানান।



Chief Editor & Publisher: Zakaria Masud Jiko
Editor: Manzur Ahmed
37-07 74th Street, Suite: 8
Jackson Heights, NY 11372
Tel: 718-565-2100, Fax: 718-865-9130
E-mail: [email protected]
� Copyright 2009 The Weekly Ajkal. All rights reserved.